প্রচ্ছদ কমিউনিটি সংবাদ সেক্যুলারিজমের বাইরে বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়- বেতার বাংলায় আবু সাঈদ খান

সেক্যুলারিজমের বাইরে বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়- বেতার বাংলায় আবু সাঈদ খান

987
0

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদঃ বেতার বাংলার প্রবাসীর ভাবনা অনুষ্ঠানে রোববার ২৪ জানুয়ারি ২০১৬তে ঢাকা থেকে অতিথি হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক, কলামিষ্ট, সাবেক দৈনিক সমকাল সম্পাদক আবু সাঈদ খান। জার্মান স্টুডিও উপস্থাপক হাবিব উল্ল্যাহ বাবুলের প্রশ্নের জবাবে আবু সাঈদ খান বলেছেন, বাংলাদেশের অগ্রগতি, উন্নয়ন, নারীর সক্ষমতা ইত্যাদি সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন ও জাতীয় ঐক্য কেবল সম্ভব সেক্যুলারিজমের মাধ্যমে। এই রাষ্ট্রে ধর্মীয় জিগির তুলে এগিয়ে নেয়া যাওয়া সম্ভব নয়।

 

আবু সাঈদ খান আরো বলেছেন, সংবিধানে যেভাবে সংশোধনীর মাধ্যমে রাষ্ট্র ধর্ম ও সেক্যুলারিজম রাখা আছে, সেটাকে তিনি সঠিক নয় বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, এটা না ধর্মীয় না সেক্যুলারিজম- এমন এক আজব ব্যবস্থা। হয় ধর্মীয় নয়তো সেক্যুলারিজম- এর দুই এর বাইরে কোন অবস্থান নেই। আর ধর্মীয় দিকে গেলে রাষ্ট্রকে পাকিস্তানের মতো করুণ অবস্থার দিকে যেতে হবে- যা কাম্য নয়।

 

press5লন্ডন স্টুডিওর উপস্থাপক নাজিম চৌধুরী ও অতিথি অলিয়ার রহমানের প্রশ্নের জবাবে আবু সাঈদ খান বলেন, প্রধান বিচারপতির সাম্প্রতিক মন্তব্য অত্যন্ত পরিস্কার ও দিক নির্দেশনা ধর্মী। এই মন্তব্যকে বিএনপি যেভাবে ব্যাখ্যা করছে, সেটা হাস্যকর। কেননা, প্রধান বিচারপতি সুচিন্তিত বক্তব্য দিয়েছেন আদালতের বাইরে। এটা কোন জাজম্যান্ট নয়। তবে তিনি বলেছেন, অবসরের গিয়ে রায় লেখা ঠিক নয়- কিন্তু সংবিধান পরিপন্থী, বলাটা যুক্তিসঙ্গত হয়নি। এই উপমহাদেশের বিভিন্ন রায় ও বিচারপতির কার্যধারা উল্লেখ করে আবু সাঈদ খান বলেছেন, আমাদের এখানে বিচারপতিরা সময় ইত্যাদির কারণে অবসরে গিয়ে রায় লিখে থাকেন। তবে প্রধান বিচারপতি সুন্দর কথা বলেছেন, লেখা ঠিক নয়। আবার লিখলে সংবিধান পরিপন্থী- সেটাও বোধ হয় ঠিক নয়।

 

habibজাতীয় পার্টির রাজনীতি ও এরশাদের ভুমিকা প্রসঙ্গে আবু সাঈদ খান বলেন, এরশাদ এখন রাজনীতিতে ডেড হর্স। জাতীয় পার্টির বিরোধীদলের ভুমিকাটাও স্বচ্ছ নয়, সঠিকও নয়।রাজনীতির রঙ্গমঞ্চে এরশাদের নানা লম্ফ জম্ফ হাস্যকর এবং কৌতুকে ভরপুর।এটা কোন ফ্যাক্টর নয়।

 

তৃতীয় ধারার রাজনীতির সম্ভাবনা নিয়ে বলেন, মাহমুদুর রহমান মান্না ও বাম পন্থীদের ছোট ছোট অংশের সমন্বয়ে যে আলোচনা দেখা গিয়েছিলো, তাদের আদর্শিক ছোট ছোট বিষয়ের সমাধান না হওয়াতে সে আশাও গুড়ে বালি।

salim2নারী/ নিউজ/সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ/রাজনীতি/টক শো/বেতার বাংলা ১৫০৩/লন্ডন/জার্মান/ঢাকা/জানুয়ারি/২০১৬

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here