প্রচ্ছদ আন্তর্জাতিক ৪ বছর পর মুসলিম এমপি উত্তরপ্রদেশে

৪ বছর পর মুসলিম এমপি উত্তরপ্রদেশে

162
0
SHARE
অনলাইন ডেক্স: ৪ বছর পর এ বার একজন মুসলিম এমপি পেল ভারতীয় রাজ্য উত্তরপ্রদেশ। কৈরানা লোকসভা আসনে জয়ী হলেন রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরএলডি) ও সমাজবাদী পার্টি (এসপি)-র প্রার্থী তবসুম হাসান।
যে রাজ্যে মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশ মুসলিম, সেই রাজ্য চার বছর আগে লোকসভা নির্বাচনে গেরুয়া ঝড়ের দাপটে একজন মুসলিমকেও সংসদে পাঠাতে পারেনি।
সে বার বিরোধীরা হাতে হাত মেলাতে পারেননি বলে মুসলিম ভোট ভেঙে কয়েক টুকরো হয়ে গিয়েছিল।
এ বার পারল, কারণ, যোগীর রাজ্যে যে দলের মুসলিম ভোটব্যাংক বেশ জোরালো, সেই সমাজবাদী পার্টি সমর্থন করেছিল কৈরানা আসনে দাঁড়ানো আরএলডি প্রার্থী তবসুম হাসানকে।
উত্তরপ্রদেশে বিরোধীরা একজোট হলে যে জাতপাতের সমীকরণও আমূল বদলে যায়, কৈরানা লোকসভা আসনের নির্বাচনী ফলাফল সেটাও প্রমাণ করে দিলো।
৫ বছর আগে এই জেলাই রক্তাক্ত হয়ে উঠেছিল জাঠ ও মুসলিমদের মধ্যে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায়।
৫ বছর পর এ বার বিজেপি-র গেরুয়া ঝড়কে রুখতে সেই জেলাতেই এক জন মুসলিমকে (তবসুম হাসান) ভোটে প্রার্থী করেছিল মূলত জাঠেদের দল আরএলডি। যার দিকে সমর্থনের হাত বাড়িয়ে দ্বিধা করেনি মুসলিম ভোটব্যাংক সমৃদ্ধ এসপি-ও।
সম্ভবত হাওয়া বুঝতে করতে পেরেই, লোকদল প্রার্থী কানওয়ার হাসানও মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিয়ে যোগ দিয়েছিলেন আরএলডি-তে।
উত্তরপ্রদেশে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের সদস্য তবসুম প্রথমবার সংসদ সদস্য হয়েছিলেন বিএসপি-র টিকিটে, ২০০৯ সালে। হরিয়ানায় এক গাড়ি দুর্ঘটনায় তার স্বামীর মৃত্যু হওয়ার পর।
২০১৪ সালে সমস্ত নজির ভেঙে দিয়ে উত্তরপ্রদেশের ৮০টি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে ৭৩টি দখল করে নিয়েছিল বিজেপি। সমাজবাদী পার্টি জিতেছিল ৩টি আসনে।
কৈরানা লোকসভা কেন্দ্রটিও ২০১৪ সালে বিজেপির হাতেই ছিল। সংসদ হুকুম সিংহের মৃত্যুতে সেখানে উপনির্বাচন হয়েছে। যদিও পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের ওই এলাকা আরএলডি-র গড় বলেই পরিচিত। তবসুমের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিজেপির মৃগাঙ্কা সিংহ।

বৃহস্পতিবার সকালে গণনা শুরুর পরে তীব্র লড়াইয়ের ইঙ্গিত মিলছিল। কিন্তু বেলা যত গড়িয়েছে, বিজেপি প্রার্থীকে পিছনে ফেলে ততই এগিয়ে গিয়েছেন আরএলডি-র তবসুম।
এ দিন তবসুম বলছেন, ‘‘বিজেপি-র ধারণা হয়েছিল, তাদের কেউ হারাতে পারবে না এখানে। সেটা ভেঙে গেল। হিন্দু ও মুসলিমরা একই সঙ্গে বিজেপি-র বিরুদ্ধে ভোট দেয়ায়।’