প্রচ্ছদ কমিউনিটি সংবাদ লন্ডনে  হলিক্রস স্কুল ও কলেজের প্রথম  পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান উদযাপিত ! 

লন্ডনে  হলিক্রস স্কুল ও কলেজের প্রথম  পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান উদযাপিত ! 

123
0
SHARE
তসলিমা তাজ: গত ৬ ই অক্টোবর পূর্ব লন্ডনের সেন্ট জন্স হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশের স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হলিক্রস স্কুল এবং কলেজের প্রথম পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান। প্রকৌশলী সিবাত সামিন রউফ, প্রকোশলী সাদিয়া আমিন ও প্রকোশলী নিশাত হায়দারের তত্ত্বাবধানে মালিহা হাসিন ও কিশোয়ার মুনিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত জাঁক জমক পূর্ণ এই অনুষ্ঠানে ১৯৭৩ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত স্কুল এবং কলেজের বিভিন্ন শিক্ষা বর্ষের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত হয়েছিলেন।
স্কুল এবং কলেজের প্রচলিত নিয়মের প্রতি সম্মান জানিয়ে প্রার্থনার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্ভোধন করা হয়। প্রাক্তন ছাত্রীদের অংশ গ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে অংশ নেন শমিতা দাশ , সাজেদা কামাল শেফালী , শাখেনাবাত কাসানা সাম্পান, সামিয়া আল হাসনা, সিবাত রউফ, নাঈমা পারভীন এবং তাসলিমা তাজ।
শুভেচ্ছা বক্তব্য রেখে স্মৃতিচারণ করেন ডাক্তার নাহিদ তোফায়েল ইফতেখার , ডাক্তার ফারজিন হক , ডাক্তার সেলিনা লিসা ,ডাক্তার আনিকা জেরিন হোসেইন , ডাক্তার মাতলুবা খান , প্রকৌশলী শামামা রহমান , ডাক্তার তাসমীম ফেরদৌস খলিল, স্কুল শিক্ষক মুসতাফি তানিয়া , স্কুল শিক্ষক শাখেনাবাত কাসানা সাম্পান , আইনজীবি ফাতেমা জান্নাত রিমি, কভেন্ট্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র লেকচারার নাঈমা পারভীন , লেখিকা তাসলিমা তাজ ,বাংলাদেশ হাই কমিশনে কর্মরত শিল্পী বাড়াই, স্কুল শিক্ষক ফারজানা মুসতাফি , প্রকৌশলী সামিয়া আল হাসনা , কিংস কলেজে কর্মরত শমিতা দাশ, প্রকৌশলী সাতিলা রহমান , লেকচারার কাশফাহ খান চৌধুরী এবং বৃটেনের জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী সাজেদা কামাল শেফালী।
জনপ্রিয় ব্যান্ড ” লাইন ” নিয়ে ব্যান্ডশিল্পী আরাফাত অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ব্যান্ডসংগীত পরিবেশনা করেন |
অনুষ্ঠানের অতিথী আপ্যায়নে ছিলেন নিশাত হায়দার ,লাবনী রহমান ,সাদিয়া আমিন , ফারহানা আফরোজ , ঈশিতা লায়লা ফরাজি এবং সিবাত রউফ।ফটোগ্রাফিতে ছিলেন তনিয়া চৌধুরী এবং পারিসা জিন্নুর।
কেক কাটা এবং রাফেল ড্র এর মধ্য দিয়ে শেষ হয় পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানটি।
উল্লেখ্য , ১৯৫০ সালে সিস্টার আগাস্টাইন মেরি হলিক্রস স্কুল ও কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন । শিক্ষাদানের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের কে ন্যায়পরায়নতা, নিয়মানুবর্তিতা এবং সুষ্ঠু ও উদার আত্বিক চর্চ্চায় মনোযোগী করার ক্ষেত্রে হলিক্রস কলেজ সূচনা লগ্ন থেকে এখন পর্যন্ত বিশেষ অবদান রেখে চলছে । হলিক্রস স্কুল ও কলেজের প্রতিটি ছাত্রী নিজস্ব বুদ্ধিমত্তা ,প্রতিভা ও প্রচেষ্টা দিয়ে স্ব স্ব ক্ষেত্রে অবদান রাখতে সক্ষম হয়েছে । হলিক্রস স্কুল ও কলেজের প্রাক্তন ছাত্রীবৃন্দ সকলেই গভীর কৃতজ্ঞতার সাথে স্কুল ও কলেজের অবদানের কথা স্বীকার করেন এবং হলিক্রস স্কুল ও কলেজের উত্তোরত্তর সফলতা কামনা করেন ।
সবশেষে সমাপনী বক্তব্যে আয়োজকবৃন্দ আমন্ত্রিত অতিথীদের ধন্যবাদ জানান এবং প্রাক্তন ছাত্রীদের নিয়ে আবারো অনুষ্ঠান করার ইচ্ছা পোষণ করেন ।